আরবী তারিখঃ এখন ১৫ জিলকদ ১৪৪৫ হিজরি মুতাবিক ২৪ মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রোজ শুক্রবার, সময় দুপুর ১:৩৩ মিনিট
এলানঃ-
>>> ১৪৪৫-১৪৪৬ হিজরী, ২০২৪-২০২৫ ইং তে সালেকীনদের জন্য সুন্নতী ইজতেমা সমূহ <<<
* মাহে যিলক্বদের প্রথম সপ্তাহের বৃহস্পতিবার ফজর থেকে শুক্রবার মাগরিব পর্যন্ত। (আসন্ন)
* মাহে রবিউল আউয়ালের শেষ সপ্তাহের বৃহস্পতিবার ফজর থেকে শুক্রবার মাগরিব পর্যন্ত। (আসন্ন)
* মাহে রজবের প্রথম সপ্তাহের বৃহস্পতিবার ফজর থেকে শুক্রবার মাগরিব পর্যন্ত। (আসন্ন)
.....................................................................
>> ১৪৪৫-১৪৪৬ হিজরী, ২০২৪-২০২৫ ইং তে মজলিসে আইম্মাহ সমূহ (ইমাম-মুআজ্জিনদের জন্য) <<<
* মাহে শাউয়ালের শেষ শনিবার সকাল ৮টা থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত। (হয়ে গেছে)
* মাহে মুহাররমের শেষ শনিবার সকাল ৮টা থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত। (আসন্ন)
* মাহে রবিউস সানীর শেষ শনিবার সকাল ৮টা থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত। (আসন্ন)
* মাহে রজবের শেষ সপ্তাহে বিষয় ভিত্তিক সেমিনার। (আসন্ন)
*** প্রতি আরবী মাসের শেষ বৃহস্পতিবার মাদরাসার সকলের জন্য মাসিক সুন্নতী ইজতেমা।
*** প্রতি বছর ২০ শাবান থেকে ৩০ রমাযানুল মুবারক পর্যন্ত ৪০ দিন, রমাযানুল মুবারক এর প্রথম ১৫ দিন, রমাযানুল মুবারক এর শেষ দশক হযরাতে সালেকীনদের জন্য এতেকাফ।

গুরুত্বপুর্ন সকল মাসাইল

গুরুত্বপুর্ন দুআ সমূহ

* সায়্যিদুল ইস্তিগফারঃ দেখুনঃ বুখার শরীফঃ ৮/৬৭اَللّٰهُمَّ أَنْتَ رَبِّي لاَ إِلَهَ إِلَّا أَنْتَ، خَلَقْتَنِي وَأَنَا عَبْدُكَ، وَأَنَا عَلَى عَهْدِكَ وَوَعْدِكَ مَا اسْتَطَعْتُ، أَعُوذُ بِكَ مِنْ شَرِّ مَا صَنَعْتُ، أَبُوءُ لَكَ بِنِعْمَتِكَ عَلَيَّ، وَأَبُوءُ لَكَ بِذَنْبِي فَاغْفِرْ لِي، فَإِنَّهُ لَايَغْفِرُ الذُّنُوْبَ إِلَّا أَنْتَ.ফজিলতঃ যে ব্যক্তি সকালে অথবা সন্ধ্যায় উপরক্ত দুআটি ইয়াকিনের সাথে পড়বে, সে ঐ দিন […]

গুরুত্বপুর্ন দুআ সমূহ Read More »

নতুন মসজিদ নির্মাণের শরয়ী বিধান ও পরিচালনার আদর্শ-নীতি

আল্লাহ তাআলা বলেনঃ তুমি এতে (মুনাফিকদের নির্মিত ইবাদতখানায়) কখনো দাঁড়িয়ো না (নামাজ পড়ো না)। প্রথম দিন থেকেই যে মসজিদের ভিত্তি স্থাপিত হয়েছে তাকওয়ার ওপর, সেটাই তোমার নামাজের জন্য অধিক যোগ্য। -সুরা  তাওবা, আয়াত: ১০৮ তাফসির : আগের আয়াতে মুসলমানদের মসজিদবিমুখ করার জন্য মুনাফিকদের ইবাদতখানা নির্মাণ বিষয়ে আলোচনা ছিল। এই আয়াতে সে ইবাদতখানায় নামাজ আদায় বিষয়ে বর্ণনা

নতুন মসজিদ নির্মাণের শরয়ী বিধান ও পরিচালনার আদর্শ-নীতি Read More »

সর্বজনীন পেনশন স্কিম, বাস্তবতা ও শরীয়ার নিরিখে

বাংলাদেশ সরকার গত ১৭ আগস্ট ২০২৩ ‘সর্বজনীন পেনশন স্কিম, ২০২৩’ নামে একটি প্রকল্প চালু করেছে। যদিও কয়েক বছর আগে থেকে এ ধরনের প্রকল্প আসবে বলে শোনা যাচ্ছিল। সর্বশেষ গত বাজেটে এ ধরনের নির্দেশনা রাখা হয়েছে। যা আইনের মাধ্যমে বাস্তব রূপ পেয়েছে। এই সবর্জনীন পেনশন স্কিমে দেখা যাচ্ছে যে, সরকার সর্বস্তরের মানুষকে ষাট বছর বয়সের পর

সর্বজনীন পেনশন স্কিম, বাস্তবতা ও শরীয়ার নিরিখে Read More »

খতম তারাবীহ এর হাদিয়া, হাফেজ সাহেবদের জানা জরুরী

বর্তমান বিশ্বে দ্বীনি ইলমের অন্যতম কেন্দ্র হলো দারুল উলূম দেওবন্দ। এ প্রসঙ্গে দারুল উলূম দেওবন্দের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত বিষয়ে একটি পুস্তিকা প্রকাশিত হয় দারুল উলূম দেওবন্দ থেকেই। পুস্তিকাটি দারুল উলূম দেওবন্দের ওয়েব সাইটে পাওয়া যায়। নাম : معاوضہ علی التراویح کی شرعی حیثیت (শরীয়তের দৃষ্টিতে তারাবীর বিনিময়)। দারুল উলূম দেওবন্দের মুহতামিম হযরত মাওলানা মুফতী আবুল কাসেম

খতম তারাবীহ এর হাদিয়া, হাফেজ সাহেবদের জানা জরুরী Read More »

শবে বারাআত; নানামুখী চিন্তায় পূণ্যময় একটি রাত!

আমাদের দেশে শবে বারাআতকে কেন্দ্র করে নানামুখী চিন্তা-ভাবনা প্রচলিত রয়েছে । কেহ কেহ তো শবে বারাআতকে একদম ভিত্তিহীন বলে অভিহিত করছেন ৷ আবার কেহ কেহ এ পূণ্যময় রাতটিকে উপলক্ষ্য করে নানা বিদআত ও রুসুমাতে জড়িত হয়ে পড়েছেন ৷ আবার তৃতীয় একটি অবস্থানে আছেন কিছু ওলামায়ে কেরাম ও তাদের অনুসারীগণ ৷তাদের অভিমত হলো: শবে বারাআত প্রমাণিত

শবে বারাআত; নানামুখী চিন্তায় পূণ্যময় একটি রাত! Read More »

আউলাদে রসুল বলা প্রসঙ্গ, আউলাদে রসুল এখনো আছে কি না?

ওলাদ (ولد) শব্দের অর্থ পুত্র বা কন্যা সন্তান। আওলাদ শব্দটি আরবী ولد (ওলাদ) এর বহুবচন। যার অর্থ পুত্র বা কন্যা সন্তানগণ এবং এর আরেকটি অর্থ অর্থ হচ্ছে বংশধর (পুত্র বা কন্যা)। বংশধর বা أولاد (আউলাদ) শব্দটির সমার্থক আরবী শব্দ হচ্ছে — জুররিয়্যাতুন (ذرية), নাসল্ (نسل), সুলালাতুন (سلالة), নাতিজাতুন (نتيجة)। উদাহরণ – وَلَدِ آدَمَ আদমের বংশধর

আউলাদে রসুল বলা প্রসঙ্গ, আউলাদে রসুল এখনো আছে কি না? Read More »

স্থানীয় ভাষায় খুৎবা প্রদানঃ একটি দালীলিক পর্যালোচনা, -মুফতি শফি কাসেমী দা. বা.

আরবী ছাড়া অন্য কোনো ভাষায় খুতবা প্রদান করা বিদ’আত ও মাকরূহে তাহরীমি। কারণ তা রাসূলুল্লাহ (সা.), সাহাবায়ে কেরাম, তাবেঈন, তাবেতাবেঈন এবং গোটা মুসলিম উম্মাহর সর্বযুগে সর্বসম্মত আমলের পরিপন্থী। জুমু’আর নামাযের আগে নবী করিম (সা.) দুটি খুতবা দিতেন। দুই খুতবার মাঝখানে অল্প সময় বসতেন। (মুসলিম শরীফ, ১/২৮৩, হাদীস-১৪২৬) রাসূল (সা.)-এর উভয় খুতবা সর্বদাই আরবী ভাষায় হতো।

স্থানীয় ভাষায় খুৎবা প্রদানঃ একটি দালীলিক পর্যালোচনা, -মুফতি শফি কাসেমী দা. বা. Read More »

মাহে রজব-শা’বান কি ও কেন?

মাহে রজব উপস্থিত, আসুন, রজব ও শা‘বানের বরকত লাভের জন্য এবং মাহে রামাজানে পৌঁছার জন্য দু‘আ করি, মাহে রজবের প্রসিদ্ধ দু‘আর সংশ্লিষ্ট হাদীস সম্পর্কে তাহকীকী পর্যালোচনাএবং মাহে রজবের অন্যান্য বিশেষ আমল সম্বন্ধে আলোচনা || আজ মাহে রজব শুরু হয়েছে। রজব মাসের শুরুতে একটি দু‘আ পড়া প্রসিদ্ধ রয়েছে। এ সম্পর্কে নিম্নোক্ত হাদীসটি বর্ণনা করা হয়–عَنْ أَنَسِ بْنِ

মাহে রজব-শা’বান কি ও কেন? Read More »

২০ রাকাআত তারাবিহ সুন্নত হওয়ার উপর ইজমায়ে উম্মত এর দালাইল সমূহ

আমাদের সমাজের কিছু লোক বলে থাকেন, তারাবির নামাজ ৮ রাকাআত, ২০ রাকাআত নয়, অথচ গত ৩০ বছর আগেও এমনটি ঘটেনি, তাই সবচেয়ে বড় তাকাজা মনে হল ২০ রাকাত তারাবির উপর ইজমায়ে উম্মত এর প্রমাণ গুলো উম্মতের সামনে উপস্থাপন করা৷ ২০ রাকাত তারাবির ইজমায়ে উম্মত এর প্রমাণসমূহ শুনে নিন! জেনে নিন!! লিখে নিন!!! ১. হযরত মোল্লা

২০ রাকাআত তারাবিহ সুন্নত হওয়ার উপর ইজমায়ে উম্মত এর দালাইল সমূহ Read More »

আসমাউন নিসা বা নারীদের ইসলামী নাম সমূহ! বাংলা অর্থসহ

বাংলা অর্থসহ অর্ধশতাধিক নারীদের ইসলামী নাম নিচে দেয়া হল, আপনি আপনার মেয়ের নাম এখান থেকে বাছাই করে নিতে পারেন! ১.আফরা = অর্থ = সাদা২.সাইয়ারা = অর্থ = তারকা৩.আফিয়া =অর্থ = পুণ্যবতী৪.মাহমুদা = অর্থ = প্রশংসিতা৫.রায়হানা = অর্থ = সুগন্ধি ফুল৬.রাশীদা = অর্থ = বিদুষী৭.রামিসা = অর্থ = নিরাপদ৮.রাইসা =অর্থ = রাণী৯.রাফিয়া = অর্থ = উন্নত১০.নুসরাত

আসমাউন নিসা বা নারীদের ইসলামী নাম সমূহ! বাংলা অর্থসহ Read More »