Rahmania Madrasah Sirajganj

গুরুত্বপুর্ন সকল মাসাইল

স্থানীয় ভাষায় খুৎবা প্রদানঃ একটি দালীলিক পর্যালোচনা, -মুফতি শফি কাসেমী দা. বা.

আরবী ছাড়া অন্য কোনো ভাষায় খুতবা প্রদান করা বিদ’আত ও মাকরূহে তাহরীমি। কারণ তা রাসূলুল্লাহ (সা.), সাহাবায়ে কেরাম, তাবেঈন, তাবেতাবেঈন এবং গোটা মুসলিম উম্মাহর সর্বযুগে সর্বসম্মত আমলের পরিপন্থী। জুমু’আর নামাযের আগে নবী করিম (সা.) দুটি খুতবা দিতেন। দুই খুতবার মাঝখানে অল্প সময় বসতেন। (মুসলিম শরীফ, ১/২৮৩, হাদীস-১৪২৬) রাসূল (সা.)-এর উভয় খুতবা সর্বদাই আরবী ভাষায় হতো। …

স্থানীয় ভাষায় খুৎবা প্রদানঃ একটি দালীলিক পর্যালোচনা, -মুফতি শফি কাসেমী দা. বা. Read More »

মাহে রজব-শা’বান কি ও কেন?

মাহে রজব উপস্থিত, আসুন, রজব ও শা‘বানের বরকত লাভের জন্য এবং মাহে রামাজানে পৌঁছার জন্য দু‘আ করি, মাহে রজবের প্রসিদ্ধ দু‘আর সংশ্লিষ্ট হাদীস সম্পর্কে তাহকীকী পর্যালোচনাএবং মাহে রজবের অন্যান্য বিশেষ আমল সম্বন্ধে আলোচনা || আজ মাহে রজব শুরু হয়েছে। রজব মাসের শুরুতে একটি দু‘আ পড়া প্রসিদ্ধ রয়েছে। এ সম্পর্কে নিম্নোক্ত হাদীসটি বর্ণনা করা হয়–عَنْ أَنَسِ بْنِ …

মাহে রজব-শা’বান কি ও কেন? Read More »

২০ রাকাআত তারাবিহ সুন্নত হওয়ার উপর ইজমায়ে উম্মত এর দালাইল সমূহ

আমাদের সমাজের কিছু লোক বলে থাকেন, তারাবির নামাজ ৮ রাকাআত, ২০ রাকাআত নয়, অথচ গত ৩০ বছর আগেও এমনটি ঘটেনি, তাই সবচেয়ে বড় তাকাজা মনে হল ২০ রাকাত তারাবির উপর ইজমায়ে উম্মত এর প্রমাণ গুলো উম্মতের সামনে উপস্থাপন করা৷ ২০ রাকাত তারাবির ইজমায়ে উম্মত এর প্রমাণসমূহ শুনে নিন! জেনে নিন!! লিখে নিন!!! ১. হযরত মোল্লা …

২০ রাকাআত তারাবিহ সুন্নত হওয়ার উপর ইজমায়ে উম্মত এর দালাইল সমূহ Read More »

আসমাউন নিসা বা নারীদের ইসলামী নাম সমূহ! বাংলা অর্থসহ

বাংলা অর্থসহ অর্ধশতাধিক নারীদের ইসলামী নাম নিচে দেয়া হল, আপনি আপনার মেয়ের নাম এখান থেকে বাছাই করে নিতে পারেন! ১.আফরা = অর্থ = সাদা২.সাইয়ারা = অর্থ = তারকা৩.আফিয়া =অর্থ = পুণ্যবতী৪.মাহমুদা = অর্থ = প্রশংসিতা৫.রায়হানা = অর্থ = সুগন্ধি ফুল৬.রাশীদা = অর্থ = বিদুষী৭.রামিসা = অর্থ = নিরাপদ৮.রাইসা =অর্থ = রাণী৯.রাফিয়া = অর্থ = উন্নত১০.নুসরাত …

আসমাউন নিসা বা নারীদের ইসলামী নাম সমূহ! বাংলা অর্থসহ Read More »

একটু পানি, অনেক পূণ্যের হাতছানি!

হাদিসের বিশুদ্ধতম গ্রন্থ বুখারি শরিফে একটি পূর্ণ অধ্যায়ের নামকরণ করা হয়েছে – পানি পান করানোর ফজিলত শিরোনামে। কাউকে পানি পান করানোর বিষয়টি আজ আমাদের কাছে হয়তো আহামরি কোনো দান কিংবা বিষয় নয়, অথচ ইসলামের দৃষ্টিতে এ সামান্য কাজটিও অভাবনীয় পূণ্যের কাজ। নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন,” সবচেয়ে উত্তম সদকা হলো মানুষকে পানি পান করানো।”  …

একটু পানি, অনেক পূণ্যের হাতছানি! Read More »

সুদ ও মুনাফা কি এক? —মুফতি রায়হান কবীর, বসুন্ধরা, ঢাকা৷

সুদ হচ্ছে ঋণকৃত অর্থের উপর একটি নির্দিষ্ট সময়ে নিশ্চিত সুনির্দিষ্ট অতিরিক্ত পাওনা । অর্থাৎ সুদের সাথে ‘নিশ্চিত’ এবং ‘সুনির্দিষ্ট’ শব্দ দুটির সম্পর্ক রয়েছে । যেমন আপনি কারো নিকট হতে ২০% সুদে ১,০০০ টাকা ঋণ নিলেন । এই ঋণকৃত টাকা আপনি ব্যবসায় খাটাতে পারেন , আবার শিল্পে বিনিয়োগ করতে পারেন , আবার ভোগে ব্যয় করতে পারেন …

সুদ ও মুনাফা কি এক? —মুফতি রায়হান কবীর, বসুন্ধরা, ঢাকা৷ Read More »

আহলে সুন্নত ওয়াল জামাআতের মৌলিক আকিদা সমূহ

একজন মানুষের ঈমান ও আমল নির্ভর করে তার আকিদা ও বিশ্বাসের উপর, যার আকীদা-বিশ্বাস যত ভালো হবে, কুরআন সুন্নাহ অনুযায়ী হবে, তার আমল আল্লাহ তা’আলার কাছে ততো বেশি কবুল হবে, যারা আকিদার মধ্যে সমস্যা আছে, সে বাহ্যিক সুরতে যাই হোক না কেন, তার আমল আল্লাহ তা’আলার কাছে কবুল হবে না৷ এজন্য আমাদের আকিদা দুরস্ত করা …

আহলে সুন্নত ওয়াল জামাআতের মৌলিক আকিদা সমূহ Read More »

সম্মিলিত মুনাজাত এর হুকুম কি? এটা বিদআত নয় বরং শরীয়ত সম্মত!

ফরজ নামাযের পর মুনাজাতের বিষয় বুঝতে হলে তিনটি পয়েন্ট ভাল করে বুঝতে হবে। যথা- ১) ফরজ নামাযের পর মুনাজাত প্রমাণিত কি না? ২) সম্মিলিত মুনাজাত প্রমাণিত কি না? ৩) ফরজ নামাযের পর সম্মিলিত মুনাজাতের হুকুম কী? ১ম বিষয় ফরজ নামাযের পর মুনাজাত করা একাধিক সহীহ হাদীস দ্বারা প্রমাণিত। যেমন- ক. وَقَالَ: يَا مُحَمَّدُ، إِذَا صَلَّيْتَ …

সম্মিলিত মুনাজাত এর হুকুম কি? এটা বিদআত নয় বরং শরীয়ত সম্মত! Read More »

গরু ছাগল বর্গা দেওয়ার বৈধ পদ্ধতি, -মুফতি শফি কাসেমী দা. বা.

আমাদের দেশে গরু ছাগল বর্গা দেওয়ার বিভিন্ন পদ্ধতি আছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এই রকম চুক্তিতে বর্গা দেওয়া হয় যে, তুমি এটাকে লালন-পালন করার পর তা থেকে যা লাভ আসবে- তার অর্ধেক আমার আর বাকি অর্ধেক তোমার। উপরোল্লেখিত পদ্ধতিতে বর্গা দেওয়া বৈধ হবে না। কারণ এটা ইজারার অন্তর্ভুক্ত কিন্তু সময় ও পারিশ্রমিক উভয়টাই অনির্ধারিত। অতএব এ ধরণের …

গরু ছাগল বর্গা দেওয়ার বৈধ পদ্ধতি, -মুফতি শফি কাসেমী দা. বা. Read More »

জাল মুহাদ্দিস নাসিরুদ্দীন আলবানী! -মুফতি ফয়জুল্লাহ সীতাকুণ্ড দা. বা.

ইতিহাসের জঘণ্যতম স্বঘোষিত অযোগ্য মুহাক্কিক হওয়ার নির্লজ্জ দাবিদার নাসিরুদ্দীন আলবানীর তাহকীক গ্রহণযোগ্য নয়।কারণ, ১/ হাদিস শাস্ত্রে তার কোনো শায়খ নাই। ২/ সে মূলত স্বঘোষিত মুহাদ্দিস। ৩/ সে পূর্ববর্তী মুহাদ্দিসদের লিখিত হাদিসের কিতাবে অনাধিকার চর্চা করতঃ বিভক্তি এবং খন্ডন সৃষ্টি করেছে। ৪/ সে বুখারী-মুসলিমের মত বিশুদ্ধ হাদিস গ্রন্থদ্বয়ের ১৭টি হাদিসের উপর আপত্তি তুলেছে। ৫/ সে বিভিন্ন …

জাল মুহাদ্দিস নাসিরুদ্দীন আলবানী! -মুফতি ফয়জুল্লাহ সীতাকুণ্ড দা. বা. Read More »